জীবন্মৃত

কবিঃ নাহিদ রাজ

চন্দ্রটা তখন উজ্জল,

পৃথিবী ভেসে চলেছে স্নিগ্ধ মোহনায়।

সবুজ ঘাসের মাঠ ভেসে যায় বাতাসে।

আমার কবর ফলকের দ্বার খুলে,

জেগে উঠি আমি!

পুরোনো বেহালায় সুর তুলে হেঁটে যাই,

খুঁজে ফিরি তোমায়।

আজ যে পূর্ণিমা!

সহস্রাদের জন্মভুমি থেকে ভেসে আসে,

ভালোবাসি, ভালোবাসি।

ভালো লাগে। তোমায় ভাবি..

তুমি শুভ্র!

স্নিগ্ধ!

রহস্যাবৃত!

আমি হাত বাড়াই।

তোমার কণ্ঠে পৃথিবী হাসে আমায় ঘিরে…

আমি মরে যাই!

শোনো!

তুমি জল না হলেও পারতে,

আমি না হয় তৃষ্ণায় মরেই যেতাম!

আমি বারবার মরে যাই।

বারবার জেগে উঠি।

হয়তো দেখা হবে মেঠোপথ পেরিয়ে

নির্জন কোনো সন্ধ্যায়।

সমপ্রেমের গল্প ফেসবুক পেজ থেকে সংগৃহীত

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.