অপেক্ষা

রাহাত ইসলাম জুবায়ের

কালো আলপনা আঁকা রাতের আকাশ,
সুখ নিদ্রার প্রস্তুতি নিচ্ছে সকলে।

মেঘের পালকে,প্রতি পরতে,
অপেক্ষারা হবে প্রকাশ।

অনুভুতির বিকাশ ঘটিয়ে ঝরে পড়বে রাত্রি,
নিশির নিশাচরের আঙিনায় ।

পোড়া বাঁশির যন্ত্রণা সুর ঝংকারে,
হাত দুটো শক্ত করে ধরা, তমশার খোলা জানালায়।

দিনের চারে সওদা শেষে,
সূর্য হারে রাত্রি নামে।

বনিক বাবু ফিরবে বলে,
নায়ের মাঝি অপেক্ষাতে তমিস্রাতেও ঘাটে।

বনিক বাবু এলে ঘাটি,
ক্লান্তি বিহীন বৈঠা টানি।

ডিঙিতে বনিক বাবু মশাই বসেন চেপে,
সলিল ঢেউয়ে চলবে এবার নৌকা ধেয়ে ধেয়ে।

চাতক সজল চক্ষু,
দুটি পরছে বেয়ে বেয়ে।

সপ্ন পুরুষ কাছে এলে,
ছইয়ের তলে কোনায় ফেলে।

জড়িয়ে ঘন চুম্বনেতে ধরবে ই চেপে,
বস্ত্র বিহীন দেহ খানি বিলিয়ে দেব তারে।

অনুভুতির সিঁড়ি বেয়ে,
অপেক্ষারি জোয়ার টানে।

শিহরণে নৌকা ভাসে,
বাবু আসে না যে?

তার অপেক্ষায় নৌকা নিয়ে
বসে আছি ঘাটে

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.