আধারের পরবাসী

সামীউল হাসান সামী

আজ রদ্দুরের আলো ঝলসে
দিচ্ছে চারপাশ।
কিন্তু আমায় ঢেকে রেখেছে
নিকষ কালো মেঘ।
সূর্যের প্রফুল্ল আলো আমার
সঙ্গে অভিমান করেছে।
রাতের কঠিন কালোই আমার
বন্ধু সবসময়।

সবাই আলোর পথে ছোটাছুটি
করছে আপ্রাণ।
আলো চাই, আলো চাই – এ
যেনো প্রাণের চিৎকার।
তারা এগিয়ে যাচ্ছে আলোর
পথে আধার ফেলে।
শুধুই আমি! একাই আজন্ম
ভাড়াটিয়া আধারের।

আলোর ফেরিওয়ালা ওদের
দিয়ে গেলো অজস্র আলো।
শুধুই আমি আধারের
বালুচরে পরবাসী বাসিন্দা।
আলো কিনবার ফুটু পয়সাও
যে আমার নেই।
তাই আমি বঞ্চিত,অবাঞ্ছিত
আলোর পরশ নিতে।

প্রতিটি কালের প্রতিটি
বাসিন্দার শত কালিমা,
আমি বয়ে চলবো ভবিষ্যতের
পথ বেয়ে।
আলো! সেতো আমার নয়,
তাই আধাঁরি করেছি আপন।
আমি আধারের পরবাসী,
বনবাসী চিরকাল।

তোমরা আলোয় বাঁচো!
আলোয় আলোয়
হও আলোকিত।
আমি আধারেই পরে রইবো,
আলোর মান বাচাতে।
আধার ভিন্ন আলোর মূল্য,কী
আছে তোমাদের কাছে?
আধার আছে বলেইতো,
আলোয় মানুষ বাঁচে

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.