কে সেই জন?

পরিশ্রান্ত পথিক

কে সেই জন?
যে আমায় ছেড়ে যাবেনা
জীবন ঝড়ের তাণ্ডবনৃত্যে,
দগ্ধভাগ্যের তপ্তে।

পরাহত জীবন বিষিয়ে তুলবে
আমার বায়ুমণ্ডল, আবহাওয়া।
অথবা বহ্নিনলের সর্বগ্রাসে
যখন বেঁচে থাকার নেই
কিঞ্চিৎ আলোর চির।

কে সেই জন?
যে আমায় ছেড়ে যেতে পারবেনা
বয়স যখন বাড়বে না;
কমবে ফিকে হবে জীবন রঙ।
বার্ধক্যহেতু বুনিবে বাসা
রোগ-শোক শীর্ণকায় শায়িত
কংকালসার দেহে ধরবে জং।
শির
উর্ধ্বে প্রদীপখানা নিভু
নিভু এমন মুহূর্তে কে পাশে
থাকবে?

কে সেই জন?
যে আমায় ফেলে চলে যাবেনা।
যখন শুকিয়ে যাবে ফুলের মধু,
যৌন বাসনা জাগবেনা বারংবার,
বক্ষ মাঝে ভালবাসার জায়গা
দখল করবে দানাবাঁধা কফ।
হৃদ স্পন্দন যখন কমতি,
শ্বাসের আধিক্য; রক্তঝরা নির্মল চোখে
কার হাত ধরব
মানব শক্ত করে।

কে সেই জন?
থাকবে পাশে আমৃত্যু?
তুমি এসো শেষনিঃশ্বাসে,
আড়ষ্ট চোখে যেন দেখি, গোলাপি
চাঁদেরহাট বসেছে তোমার
কোঁচকানো ঐ রূপে।
পান খাওয়া রক্তিম ওষ্ঠযুগল,
না,না মনে পরবে না,
তোমার চিরচেনা গোলাপি
বর্ণ।
এ যে আমার আবেগ নয়, হয়ত অভিলাষ।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.