একদিন এখানে ছিলো না কেউ

লেখক- আয়াত মোহাম্মদ হিমু

একদিন এখানে ছিলো না কেউ, ছিলাম না আমি,ছিলে না তুমি। হয়তো ছিলো বিরল প্রকৃতি, কুহেলিকাবৃত কোনো প্রান্তর,তপ্ত মরুভূমি, কিংবা কোনো প্রেম গঙ্গার ঢেউ।

প্রিয় কোনো সুরে বাজতো না এখানে বাঁশি, দুঃখের তীব্র ক্রন্দন করতো না কেউ।

প্রনয়ের আবেশে মিলিত হতো না দুটি গাত্র, ছিলো না ভালোবাসা নামক কোনো অনুভূতি।

অতঃপর!
কোনো এক ক্ষণে,
সৃষ্ট হলো মানবজাতি। আগমনিত হলাম তুমি এবং আমি।
আগমন ঘটেছিলো আরো হাজারো লক্ষাধিক মানবের।

অতঃপর!
ভূমিষ্ঠ হয় ভালোবাসা,
বেজে ওঠে প্রিয় কোনো বাঁশির সুর, দুঃখের ক্রন্দনে কেউবা হয় বিড়ম্বন।

তেমনি আমরাও এখানে,
পেতেছি সংসার,
হয়েছি প্রণয়িত।
ভেসেছি স্বপ্নিল কোনো রঙিন ভেলায়।

এবং,
একদিন চলে যাবো,
আমি তুমি আমরা সবাই।
রয়ে যাবে শুধু এই বিস্তীর্ণ ভূমি। কুহেলিকাবৃত সেই মাঠ,তপ্ত মরু, রবে হয়তো গঙ্গার সেই ঢেউ।

অতঃপর,
আবারও হয়তো,
আগমন ঘটবে কোনো নতুন মানবীয় বংশ।
তাঁরাও বলবে,
একদিন এখানে ছিলো না কেউ।

প্রথম প্রকাশ – সাতরঙ

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.