আমার গল্পে তুমি

লেখক-তানভীন হাসান সৌরভ

প্রতিদিনের মতই সকাল সকাল তারাহুরো করছে শুভ্র। গোসল টা শেষ করেই, এই সৌরভ,সৌরভ রান্না ঘর থেকে, আসছি এই এই আরে বাবা বুঝেছি, যাও দেখ তোমার টেবিলের পাশে মানিব্যাগ আর রুমাল রেখে দিয়েছি। আর টাই.. বলতে বলতে টাই নিয়ে গলায় পরিয়ে দিচ্ছে সৌরভ।
শুভ্র হাসতে হাসতে এক পলকে দেখছে সৌরভকে। “সৌরভ আজ তোমাকে অনেক সুন্দর লাগছে” মুচকি হেসে “প্রতিদিনি তো বলো,কোন দিন লাগে না?” শুভ্র সৌরভকে জড়িয়ে ধরে ” লক্ষি বউ আমার।” হয়েছে হয়েছে এসো খাবে, এখনো তোমাকে খাইয়ে দিতে হয়,আমি না থাকলে কি করবে? আমিও যাব তোমার সাথে। 🙂 হ্যা হ্যা, দেখা যাবে।
কপালে আলতো করে কিস করে বেরিয়ে গেল শুভ্র।নিচে নেমে বার বার ঘুরে ঘুরে দেখছে বারান্দায় সৌরভ দাড়িয়ে হাত নাড়ছে……কি মিষ্টিমুখ, দেখলেই সব কষ্ট ভুলে যায় শুভ্র।
দুপুর ১২ টা,
হটাৎ ফোন সৌরভের,” মা অনেক অসুস্থ,যেতে হবে, কদিন থাকতে বলেছে…… না করতে পারল না শুভ্র, আচ্ছা যাও,দেখে শুনে যেও আমি গাড়ি পাঠাচ্ছি। আচ্ছা, আর খেয়ে নাও তাড়াতাড়ি। হুম।
ব্যাস মনের মাঝে ঝড় চলছে, ৫ বছর সম্পর্ক, একদিন ও সৌরভকে ছাড়া থাকেনি শুভ্র,আজ কিভাবে?
মাঝে অনেক বার কথাও হলো। সব ঠিকি তো আছে, থাকতে কেন হবে,আবার আমাকেও যেতে বলল না, মনে মনে বলছে শুভ্র, ধুর আর কাজেই মন বসলো না।
রাত ১১ টা,
টিং টং,দরজা খুলে সৌরভ হতবাক,সাদা পায়জামা,সাদা পাঞ্জাবি আর হাতে বিশাল লাগেজ নিয়ে শুভ্র হাজির। তু তুমি এত রাতে,তুমি না ঘুমিয়ে গেলে, শশুর বাড়ি, মধুর হাড়ি বলে হন হন করে ব্যাগ রেখে মা,বাবার সাথে দেখা করে এল। বাবা মাও বেশ খুশি। সৌরভ এখনো বোকার মত দাড়িয়ে আছে,আর মুখের কোনে ছোট্ট হাসি।
মা,আমড়া একটু আসছি…
সৌরভ খেয়েছো, ” না বসবো,” জানতাম,বলে হাত ধরে টেনে নিয়ে চলেছে শুভ্র,। কই যাচ্ছ,আর তুমি খাওনি? সৌরভ একটু রেগে গিয়েই বলছে। সব বলছি, গাড়ি স্টার্ট করা। চল।
সৌরভ কিছু বলতে পারল না।
মিনিট ৭ পর গাড়ি এক চাইনিজ এর সামনে, পরিচিত জায়গা,ওরা প্রায়ই এখানে আসে। খাবার সব রেডি কিভাবে? সৌরভ বলতেই শুভ্র মাথা নিচু করে,” ম্যানেজার বেটাকে ফোন করে তোমার পছন্দের খাবার গুলো রেডি করে রাখতে বলে ছিলাম।
সৌরভ কিছুক্ষন শুভ্রর দিকে তাকিয়ে, এত ভালবাস কেন?
শুভ্র: তুমি যে আমার সৌরভ তাই….. and I love u soooo much.
সৌরভ হেসে দিল। সেই হাসি,যা শুভ্রর সব থেকে প্রিয়।
“এভাবে চলে এলে কেন “
শুভ্র হাসতে হাসতে বলছে, তুমি যাই বল আর কর তোমাকে ছাড়া আমি একদিন ও থাকতে পারবো না, কখনো না…………

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.