নারীর মতো সুন্দর

মৃত্তিকা খানম

আমি অঙ্কুরের মতো সুন্দর।

আমি চির তারুণ্য, ষোড়শী তরুণীর মতো সুন্দর।

আমায় না যায় ছোঁয়া, না যায় মাপা,

আমি সীমাহীন ব্যাপ্তির মতো সুন্দর।

আমি শূন্যের মতো সুন্দর।

আমি আমার মৃত্তিকার মতো সুন্দর।

আমি স্নিগ্ধ বাতাসের মতো সুন্দর।

আমি সবুজ ঘাসের, নরম আঁচড়ের মতো সুন্দর।

আমি আবর্জনা, ময়লার স্তূপের মতো সুন্দর।

আমি রাতে নিশি করা, কলঙ্কিনীর মতো সুন্দর।

আমি পিরিয়ডের যন্ত্রনা, অপবিত্র রক্তের মতো সুন্দর।

আমি আপন মায়ের মতো সুন্দর।

আমি বাবার চেতনার মতো সুন্দর।

আমি সদ্য জন্ম নেয়া, কোন শিশুর কান্নার মতো সুন্দর।

আমি অবুঝ শিশুর খলখলানি হাসির মতো সুন্দর।

আমি প্রসব বেদনার মতো সুন্দর।

আমি শান্ত, ভয়াবহ, ভয়ংকর সুন্দর।

আমি পুরুষতন্ত্রের গালে চপেটাঘাতের মতো সুন্দর।

আমি প্রকৃতির মতো সুন্দর।

আমি নেশাতুর কোন পুরুষের, চিকচিক করা ঘামের মতো সুন্দর।

আমি বুকভরা লোম যুক্ত কোন যুবকের,

আদরের মতো সুন্দর।

আমি বিধাতার চেয়েও সুন্দর।

আমি সদ্য বিবাহিতা নারীর, লাল সিঁদুরের মতো সুন্দর।

আমি সুগন্ধির চেয়েও সুন্দর।

আমি প্রকৃতিতে ফোঁটা ফুলের চেয়েও সুন্দর।

আমি ত্রুটিপূর্ণ মানুষের মতো সুন্দর।

আমি জীবন্ত কিংবদন্তির মতো সুন্দর।

আমি আমার মনের আয়নার মতোই সুন্দর।

আমি সম্পূর্ণা, আমি নারীর মতো সুন্দর।

মৃত্তিকা একজন ট্রান্স উইমেন, রূপান্তরকামী নারী। উনি পুরুষ দেহে জন্মালেও, উনার মানসিক লিঙ্গ নারী। উনার যৌন আকর্ষণ বোধ ট্রান্স লেসবিয়ান

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.